1. [email protected] : dalim :
  2. [email protected] : dalim1 :
শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন

ফেনীর দাগনভূঁঞায় কলেজের সামনে ময়লার স্তূপ:ব্যবস্থা নিতে পৌরমেয়রকে নির্দেশ ম্যাজিস্ট্রেটের

  • প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, ২ নভেম্বর, ২০২১
  • ৭৯ বার পঠিত হয়েছে

ল লাইফ রিপোর্টঃ ফেনীর দাগনভূঁঞায় ইকবাল মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের সামনে দাগনভূঁঞা পৌরসভার ময়লার স্তুপের কারণে মারাত্মকভাবে পরিবেশ দূষণের বিষয়ে স্বপ্রণোদিত হয়ে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইন। গতকাল ফেনীর একটি স্থানীয় দৈনিক পত্রিকায়  “স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ৪ হাজার শিক্ষার্থী” শিরোনামে  সংবাদ প্রচারিত হলে উক্ত সংবাদ আমলে নিয়ে একই দিনে তিনি এই আদেশ দেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়, দাগনভূঁঞা ইকবাল মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের সামনে দাগনভূঁঞা পৌরসভার ময়লার স্তুপের কারণে দূর্গন্ধে সরকারী ইকবাল মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের শিক্ষাদানে ব্যাঘাত হচ্ছে এবং মারাত্মকভাবে  পরিবেশ দূষণের স্বীকার হচ্ছে মর্মে পত্রিকায় সংবাদ প্রচার হয়। সংবাদে বলা হয়, ময়লার স্তূপের কারণে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে আছে কলেজে অধ্যয়নরত প্রায় ৪ হাজার শিক্ষার্থী। পঁচা দূর্গন্ধে শিক্ষার্থীদের ক্লাস করতে কষ্ট হচ্ছে। এছাড়াও পঁচা দূর্গন্ধে আশপাশের পরিবেশ দূষিত হচ্ছে। দূর্গন্ধে আশপাশের মানুষরা বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। দাগনভূঁঞা পৌরসভার অপরিকল্পিত বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় হুমকির মুখে সরকারী ইকবাল মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার পরিবেশ। কলেজের যাতায়াতের রাস্তায় প্রতিদিন পৌরসভার ময়লা আবর্জনার স্তুপ করে রাখে। এতে কলেজে যাওয়ার পথে ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতিদিন চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। আবর্জনার স্তুপের দূর্গন্ধের কারণে ব্যহত শিক্ষা কার্যক্রম। দাগনভূঁঞা পৌরসভার নির্দিষ্ট কোন স্থানে ময়লা ফেলার ডাম্পিং ব্যবস্থা নেই। ফেনী-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের মাতুভূঁঞা ব্রীজের সামনে ও সরকারী ইকবাল মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের সামনে পৌরসভার ময়লাগুলো ফেলা হতো। ব্রীজের কাজ চলার কারণে পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের ময়লাগুলো প্রতিদিন পরিচ্ছন্নকর্মীরা সরকারী ইকবাল মেমোরিয়াল ডিগ্রি কলেজের সামনে ফেলে রাখে। এছাড়াও উক্ত ঘটনার বিষয়ে ফেনী স্থানীয়  একটি অন-লাইন মিডিয়া গত ৫ অক্টোবর সচিত্র প্রতিবেদনসহ একটি ভিডিও রিপোর্ট তাদের ফেসবুক ও ইউটিউবে প্রকাশ করে। উক্ত ভিডিও প্রতিবেদনও কলেজের সম্মুখে এবং গুরুত্বপূর্ণ স্থানে দাগনভূঁঞা পৌরসভা কর্তৃক ময়লা ও আবর্জনা ফেলে শিক্ষার পরিবেশ মারাতœকভাবে ব্যহত করার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ আছে। আদালতের পর্যবেক্ষণে বলা হয়,  উক্ত সংবাদে বর্ণিত অভিযোগ ১৯৯৫ সনের পরিবেশ সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য  ও বিচারযোগ্য অপরাধ। জনজীবনের স্বাভাবিক পরিবেশ নিশ্চিত ও পরিবেশ সংক্রাস্ত অপরাধ নির্মুল করার লক্ষ্যে এই সংবাদকে আমলে নিয়ে তদন্ত প্রয়োজন। ফেনীর পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালককে তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়। এছাড়াও  দাগনভূঁঞা পৌরসভার মেয়রকে পরিবেশ দূষন ও ময়লা ব্যবস্থাপনার বিষয়ে কার্যকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করে ২৮ নভেম্বর ম্যাজিস্ট্রেটটে লিখিতভাবে জানানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

অনুগ্রহ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ সম্পর্কীত আরো সংবাদ