1. [email protected] : dalim :
  2. [email protected] : dalim1 :
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১০:০৩ পূর্বাহ্ন

মামলাজট নিরসনে মেডিয়েশনের বিকল্প নেই: বিচারপতি ইমান আলী

  • প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, ২ এপ্রিল, ২০২১
  • ৮৪৪ বার পঠিত হয়েছে

ল লাইফ রিপোর্ট: আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী বলেছেন,প্রকৃত পক্ষে বাংলাদেশে মামলাজট কমানোর জন্য মেডিয়েশন(মধ্যস্থতা) পদ্ধতি প্রয়োগের বিকল্প নেই। তিনি বিচারকদের উদ্দেশে বলেন,সুশৃঙ্খল অবস্থায় মেডিয়েশনের প্রশিক্ষণ গ্রহণের পর বিচার কাজে তা প্রয়োগের মাধ্যমে মামলাজট কমানো সম্ভব।

শুক্রবার মেডিয়েশন বিষয়ে খুলনা বিভাগের বিচারকদের দুইদিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সূচনা বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ভার্চুয়ালি এ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় ভারতের জম্মু-কাশ্মীর হাইকোর্টের সাবেক প্রধান বিচারপতি গীতা মিতাল, বিমসের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এস এন গোস্বামী, অ্যাক্রিডিটেড মেডিয়েটর তনুশ্রী রায়,প্রিয়াংকা চক্রবর্তী প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন।

কর্মশালায় খুলনা বিভাগের ৪০ জন বিচারক অংশ গ্রহণ করেছেন। তারা হলেন,সাতক্ষীরার সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর ইসলাম, সাতক্ষীরার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ ফারুক ইকবাল, সাতক্ষীরার (যুগ্ম জেলা জজ) ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনাল বিচারক মোঃ জাহিদুল আজাদ, যশোরের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ শিমুল কুমার বিশ্বাস, যশোরের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আসিফ ইকবাল, চুয়াডাঙ্গার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ সিরাজুল ইসলাম গাজী, ঝিনাইদহের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ মাসুদ আলী, বাগেরহাটের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ খুরশিদ আলম, কুষ্টিয়ার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ রাকিবুল ইসলাম, মেহেরপুরের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ কেরামত আলী, নড়াইলের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আকরাম হোসেন,খুলনার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ এম এ সাঈদ, মাগুরার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ শাহজাহান আলী, খুলনার বিচারক (অর্থ ঋণ আদালত) রাফিয়া ইসলাম, যশোরের জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার (সিনিয়র সহকারী জজ) মোঃ আহসান হাবীব, সাতক্ষীরার জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার (সিনিয়র সহকারী জজ) সালমা আক্তার, খুলনার জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার (সিনিয়র সহকারী জজ) প্রবীর কুমার দাস, বাগেরহাটের সহকারী জজ ও লিগাল এইড অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ ইমরান মোল্লা, মেহেরপুরের লিগ্যাল এইড অফিসার মোঃ সেলিম রেজা, নড়াইলের জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার পশুপতি বিশ্বাস, মাগুরার জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার নুসরাত জাবীন নিম্মী, সাতক্ষীরার সিনিয়র সহকারী জজ মোঃ নাসিরুদ্দিন ফরাজী, কুষ্টিয়ার সিনিয়র সহকারী জজ মোঃ হাদিউজ্জামান, যশোরের সিনিয়র সহকারী জজ মোঃ মিজানুর রহমান নাসির উদ্দিন, খুলনার সিনিয়র সহকারী জজ প্রণব কুমার হুই, নড়াইলের সিনিয়র সহকারী জজ তাকিয়া সুলতানা, মেহেরপুরের সিনিয়র সহকারী জজ বিল্লাল হোসেন, সাতক্ষীরার সহকারী জজ মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, সাতক্ষীরার সহকারী জজ মোঃ ইমরান আহম্মেদ, চুয়াডাঙ্গার সহকারী জজ নাজনীন আক্তার, চুয়াডাঙ্গার সহকারী জজ (ভারপ্রাপ্ত লিগ্যাল এইড অফিস) মোঃ আরমান হোসেন, যশোরের সহকারী জজ রেজাউল করিম বাঁধন, খুলনার সহকারী জজ মোঃ রাশিদুল আলম, খুলনার সহকারী জজ রিমি সাহা, ঝিনাইদহের সহকারী জজ মোঃ রিপন হোসেন, ঝিনাইদহের সহকারী জজ মোঃ রিয়াদ হাসান, বাগেরহাটের সহকারী জজ জুবাইদা নাসরিন বর্ণা, কুষ্টিয়ার সহকারী জজ রাইসা সরকার, কুষ্টিয়ার সহকারী জজ মোঃ মোখলেছুর রহমান, মাগুরার সহকারী জজ অনুশ্রী রায়।

উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন ও আইন মন্ত্রণালয়ের অনুমতি সাপেক্ষে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েশন সোসাইটির(বিমস) উদ্যোগে ক্রমান্বয়ে সারাদেশের বিচারকদের মেডিয়েশন বিষয়ে প্রশিক্ষণ চলছে। ইতিমধ্যেই রংপুর,রাজশাহী ও বরিশাল বিভাগের বিচারকদের প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে।

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় আপিল বিভাগের বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মেডিয়েটররা প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছেন।

অনুগ্রহ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ সম্পর্কীত আরো সংবাদ