1. [email protected] : dalim :
  2. [email protected] : dalim1 :
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ১০:১৫ পূর্বাহ্ন

জোর করে মেয়েকে বিয়ে-বাবাকে হত্যা :আসামিদের আত্মসমর্পণের নির্দেশ আদালতের

  • প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, ২৫ মে, ২০২১
  • ১৭২ বার পঠিত হয়েছে

ল লাইফ রিপোর্ট :ফরিদপুরে হিন্দু সম্প্রদায়ের এক কিশোরীকে ধর্মান্তরিত করে বিয়ের পর তার বাবাকে পিটিয়ে হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত তিন আসামিকে দুই সপ্তাহের মধ্যে আত্মসমর্পণ করার নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। যাদের আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে তারা হলেন- ইমারত মোল্লা, কালাম মোল্লা ও সিদ্দিক মোল্লা।

রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার (২৫ মে) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে আজ আবেদনকারীদের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিত দেবনাথ।

মামলার নথি থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, ফরিদপুরের নগরকান্দার চর যশোরদী ইউনিয়নের যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজ মোল্লা মেঘারকান্দি গ্রামের কার্তিক সিকদারের কিশোরী মেয়ে চঞ্চলাকে অপহরণ ও জোর করে ধর্মান্তরিত করে বিয়ে করেন সিরাজ মোল্লা। পরবর্তীতে ২০০৬ সালের ১ জুন রাতে সিরাজ মোল্লা ও তার সহযোগীরা কার্তিক সিকদারকে ধরে নিয়ে অমানুষিক নির্যাতন করে ফেলে রেখে যায়।

আহত কার্তিককে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেয়া হলেও সেখানে বাধা দেয়া হয়। পরদিন ২ জুন হাসপাতালে নেয়ার পথে কার্তিক সিকদার মারা যান। এরপর তার মরদেহ পোড়াতে না দিয়ে মাটি চাপা দিয়ে রাখা হয়।

এ ঘটনায় ২০০৭ সালের ১৩ মার্চ নিহত কার্তিক সিকদারের স্ত্রী মিলনী সিকদার আদালতে সিরাজ মোল্লা ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এ মামলায় নিম্ন আদালত ২০১৯ সালের ২২ জুলাই সিরাজ মোল্লাসহ পাঁচজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়ে রায় দেয়।

রায়ের পর আসামিদের কারাগারে পাঠানো হয়। এ অবস্থায় ইমারত মোল্লা, কালাম মোল্লা ও সিদ্দিক মোল্লা হাইকোর্টে জামিন আবেদন করলে গত ১০ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট তাদের জামিন দেন। এরপর তারা কারাগার থেকে মুক্তি পান। এই অবস্থায় তাদের জামিন স্থগিত ও আসামিদের গ্রেফতারের নির্দেশনা চেয়ে আবেদন করেন রাষ্ট্রপক্ষ। আজ ওই আবেদনের শুনানি শেষে এই আদেশ দেন আদালত।

অনুগ্রহ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ সম্পর্কীত আরো সংবাদ