1. [email protected] : dalim :
  2. [email protected] : dalim1 :
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম
ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপাল বণিক কারাগারে ফখরুলসহ ৩৯ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ২১ নভেম্বর বিএনপি নেতা দুলুর বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলা চলবে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ৩১ অক্টোবর ৪৬০ কোটির মালিক কম্পিউটার অপারেটর নুরুল ফের রিমান্ডে ‘ইভ্যালির চেয়ারম্যান-এমডি প্রতারক চক্রের লিডার’ ভুল চিকিৎসায় পুরুষত্বহীনতার অভিযোগ:২৪ ঘন্টার মধ্যে ওসিকে মামলা নেয়ার নির্দেশ দিলেন ম্যাজিষ্ট্রেট ফেনীর দাদনার খাল দখল ও দুষণের অভিযোগ:স্বপ্রণোদিত হয়ে তদন্তের নির্দেশ দিলেন স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট ফেনীর দাদনার খাল দখল ও দুষণের অভিযোগ:স্বপ্রণোদিত হয়ে তদন্তের নির্দেশ দিলেন স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসামীর প্রক্সি দেয়ার ঘটনায় করা মামলায় একব্যক্তির ২ বছর কারাদণ্ড

ইলেকট্রিক ব্যাট দিয়ে পুড়িয়ে ফেলা হয় গৃহকর্মী সুইটির শরীর

  • প্রকাশিত হয়েছে : রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
  • ১৫৮ বার পঠিত হয়েছে

ল লাইফ রিপোর্টঃমশা মারার ইলেকট্রিক ব্যাট দিয়ে গৃহকর্মী সুইটির শরীর পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর হোসেন। তিনি বলেন, রুটি বানানোর বেলন দিয়ে আঘাত করে দুই হাত, পায়ের হাঁটু ও শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত করা হয়েছে। আঘাত করা স্থানে রক্ত জমাট বেঁধে গেছে।

রোববার (৪ জুলাই) ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এসব তথ্য জানান তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর হোসেন।নির্যাতনের শিকার গৃহকর্মী সুইটি

এদিকে গৃহকর্মীকে নির্যাতনের ঘটনায় শাহবাগ থানায় ফৌজদারি কার্যবিধির ৫৪ ধারায় দায়ের করা মামলায় গৃহকর্তা তান‌ভির আহসান ও তার স্ত্রী অ্যাড‌ভো‌কেট না‌হিদকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আবেদনে তিনি বলেন, ৯ মাস আগে নির্যাতনের শিকার সুইটিকে কাজের জন্য নিয়ে আসেন ওই দম্পতি। পরবর্তীতে সে কাজ করতে পারে না বলে বিভিন্ন অজুহাতে তাকে মারধর করেন তারা। গত ১ জুলাই রাত ১০টার দিকে সুইটিকে জামা কাপড় খুলে মশা মারার ইলেকট্রিক ব্যাট দিয়ে তার পেছনে শরীরের নরম মাংস পুড়িয়ে ফেলেন তারা। এছাড়াও রুটি বানানোর বেলন দিয়ে দুই হাত, পায়ের হাঁটুতে ও শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত করেন এ দম্পতি।

অভিযুক্ত গৃহকর্তা তান‌ভির আহসান (ডানে) ও তার স্ত্রী অ্যাড‌ভো‌কেট না‌হিদ
আঘাতে তার শরীরে রক্ত জমাট বেঁধে যায়। এরপর সুইটি জীবন বাঁচানোর জন্য পালানোর চেষ্টা করলে তাকে বাথরুমে আটকে রাখেন তারা। ৩ জুলাই রাত ১০টার দিকে সুইটি বাসা থেকে পালিয়ে আরেকজনের বাসায় আশ্রয় নেয়। পরে ওই বাসার গৃহকর্তা ইউসুফ বিষয়টি আশপাশের লোকদের জানালে তারা এ দম্পতির বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় অবহিত করেন।

এম/এ/হ

অনুগ্রহ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ সম্পর্কীত আরো সংবাদ