1. [email protected] : dalim :
  2. [email protected] : dalim1 :
মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১:১২ পূর্বাহ্ন

প্রাপ্ত বয়স্ক সব নাগরিককে টিকা দেওয়ার নির্দেশনা চেয়ে রিট

  • প্রকাশিত হয়েছে : সোমবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৯৬ বার পঠিত হয়েছে

ল লাইফ রিপোর্ট: করোনাভাইরাস মোকাবিলায় স্বল্প, মাঝারি এবং দীর্ঘমেয়াদি জাতীয় পরিকল্পনা প্রণয়নের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। রিটে বয়স বিবেচনা না করে প্রাপ্ত বয়স্ক সব নাগরিককে টিকা দেওয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

সোমবার (২৬ এপ্রিল) মানবাধিকার সংস্থা ল’ অ্যান্ড লাইফ ফাউন্ডেশন এর পক্ষে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মোহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব ও ব্যারিস্টার মোহাম্মদ কাওছার এ রিট দায়ের করেন।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, ক্যাবিনেট সচিব, পরিকল্পনা সচিব, রোগতত্ত্ব রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকে রিটে বিবাদী করা হয়েছে।

ব্যারিস্টার মোহাম্মদ হুমায়ন কবির পল্লব বলেন, দেশ করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ অতিক্রম করছে। দ্বিতীয় ঢেউয়ে করোনাভাইরাস আরও বেশি আগ্রাসী। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন এবং শত শত মানুষ মারা যাচ্ছেন। হাসপাতালগুলো এরইমধ্যে করোনাভাইরাস রোগীতে টইটম্বুর। ডাক্তার নার্স স্বাস্থ্যকর্মী করোনাভাইরাস রোগী সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন। করোনাভাইরাস প্রতিনিয়তই তার রূপ পাল্টে নতুন নতুন রূপে আবির্ভূত হচ্ছে। বিভিন্ন স্টাডি ও গবেষণার রিপোর্ট থেকে প্রতীয়মান হয় যে করোনাভাইরাস শিগগিরই নির্মূল হচ্ছে না বরং এটি আগামী ১০ থেকে ১৫ বছর স্থায়ী হতে পারে। তাই দীর্ঘমেয়াদে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় প্রয়োজন জাতীয় পর্যায়ে সমন্বিত পরিকল্পনা। করোনাভাইরাস এর নতুন নতুন বিধ্বংসী উপকরণ মোকাবিলা করতে গিয়ে প্রতিবেশী দেশ ভারতের স্বাস্থ্যব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। প্রয়োজনীয় অক্সিজেনের অভাবে অসংখ্য রোগী প্রতিদিন মারা যাচ্ছে। টিকার অপ্রতুলতা, প্রয়োজনীয় ওষুধ ও হাসপাতালের স্বল্পতা বিষয়টিকে আরও মারাত্মক করে তুলেছে। সে দেশের উচ্চ আদালত ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন আমদানির জন্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছেন।

বাংলাদেশে এ ধরনের পরিস্থিতি এড়ানোর জন্য সরকারকে এখনই স্বল্প, মাঝারি ও দীর্ঘমেয়াদি সমন্বিত জাতীয় পরিকল্পনা প্রণয়ন করে তা বাস্তবায়নে উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, করোনা চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় পথ্য, ওষুধ, অক্সিজেন এবং ১৮ বছর বয়সী সব নাগরিকের জন্য পর্যাপ্ত টিকা ক্রয় করে তা দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে রিটে।

রিটে বলা হয়, স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং জীবন ধারণের অধিকার প্রত্যেকটি মানুষের সংবিধান স্বীকৃত মৌলিক অধিকার। সবাইকে মরণঘাতী ভাইরাসের টিকা দেওয়া সরকারের অন্যতম মৌলিক দায়িত্ব এবং প্রত্যেক নাগরিকের এই টিকা পাওয়ার অধিকার একটি মৌলিক অধিকার।

অনুগ্রহ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ সম্পর্কীত আরো সংবাদ