1. [email protected] : dalim :
  2. [email protected] : dalim1 :
রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১১:০৮ অপরাহ্ন

নারায়ণগঞ্জের সেই গ্যাস বেলুন বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দিলেন ম্যাজিস্ট্রেট

  • প্রকাশিত হয়েছে : মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১
  • ৫৩৮ বার পঠিত হয়েছে

ল লাইফ রিপোর্ট: নারায়ণগঞ্জের সেই গ্যাস বেলুন বিষয়ে তদন্ত করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন ম্যাজিস্ট্রেট ।

নারায়ণগঞ্জের ঐ ঘটনার বিষয়ে স্বপ্রণোদিত হয়ে তদন্তের জন্য রূপগঞ্জ থানার ওসিকে নির্দেশ দেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাউছার আলম।

তদন্ত প্রতিবেদনটি দাখিলের জন্য আগামী ১৩ এপ্রিল দিন ধার্য করেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত।

এছাড়াও রূপগঞ্জ থানার তিতাস গ্যাস এর দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এবং নারায়ণগঞ্জের বিস্ফোরক অধিদপ্তর এর পরিদর্শক-কে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

এর আগে বিভিন্ন দৈনিক পত্রিকায় উক্ত বিষয়ে সংবাদ প্রকাশ হলে বিষয়টি আমলে নেন আদালত।

আদালতের পর্যবেক্ষণে বলা হয়, এভাবে বেলুনের মধ্যে গ্যাস সংরক্ষণ করা খুবই বিপদজনক। যেকোন সময় বড় ধরণের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এভাবে গ্যাস ব্যবহার ১৮৮৪ সনের বিস্ফোরক আইন এবং ২০১০ সনের বাংলাদেশ গ্যাস আইন অনুযায়ী দন্ডনীয় অপরাধ।
তবে উক্ত অপরাধটি কাদের দ্বারা সংগঠিত হচ্ছে তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ও সাক্ষীদের বক্তব্য নিয়ে তদন্ত করা প্রয়োজন। এজন্য আদালত স্বপ্রণোদিত হয়ে এই আদেশ প্রদান করেন।

পলিথিনের বেলুনে রান্নার জন্য বিপদজনকভাবে সংগ্রহীত গ্যাস!

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে ১৫ গ্রামের বাড়িঘরের ভেতর, বারান্দায়, ছাদে, গাছে রঙ-বেরঙের বড় লম্বাটে পলিথিনের বেলুন বিশেষভাবে বেঁধে রাখা হয়েছে। পলিথিনের বেলুনের ভেতরে দুদিক থেকে প্লাস্টিকের পাইপ ঢোকানো। পাইপের একটি মুখ গ্যাসের চুলার সঙ্গে, অন্যটি গ্যাসের সঞ্চালন লাইনের সঙ্গে যুক্ত।

স্থানীয়দের মাধ্যমে জানা যায়, এ পলিথিনের বেলুনগুলো গ্যাস ভর্তি। তারা এভাবে পলিথিনে গ্যাস সংরক্ষণ করে রান্নার কাজে ব্যবহার করছেন।
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের খামারপাড়া, তালাশকুর ও নগরপাড়া এলাকায় এরকম বিপদজনক পদ্ধতিতে গ্যাস ব্যাবহার করছেন স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে সাংবাদিকদের সংবাদ সংগ্রহের সময় কেউ কেউ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের গ্যাস দেওয়া হলে এগুলো ব্যবহার করবো না।

অনুগ্রহ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ সম্পর্কীত আরো সংবাদ