1. [email protected] : dalim :
  2. [email protected] : dalim1 :
বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:১০ পূর্বাহ্ন

বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে বিচার ব্যবস্থায় মেডিয়েশন পদ্ধতি প্রয়োগ করতে হবে

  • প্রকাশিত হয়েছে : শুক্রবার, ৬ আগস্ট, ২০২১
  • ৭৪ বার পঠিত হয়েছে

ল লাইফ রিপোর্ট: আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী  বিচার প্রার্থীদের মেডিয়েশন বিষয়ে  উদ্ধুদ্ধ করতে নিম্ন আদালতের বিচারকদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, দেওয়ানি,পারিবারিক ও অর্থঋণ আদালত সমূহের মামলায় আবশ্যিক ভাবে মেডিয়েশন পদ্ধতি প্রয়োগ করতে হবে। এটা বিচারকদের জন্য  আবশ্যিক পালনীয় কর্তব্য। এরই মধ্যে সুপ্রিম কোর্ট থেকে এ বিষয়ে সার্কুলার জারি করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে মেডিয়েশন বিষয়ে চট্রগ্রাম বিভাগের বিচারকদের দুইদিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সূচনা বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েশন সোসাইটি(বিমস) এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করেছে।

বিচারপতি মোহাম্মদ  ইমান আলী বলেন,বঙ্গবন্ধু ইংরেজ আমলে তৈরি বিচার ব্যবস্থার পরিবর্তন করতে চেয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন,মানুষ যেন সহজে বিচার পায় সেই ব্যবস্থা প্রবর্তন করতে হবে। আমি মনে করি  একমাত্র মেডিয়শন পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে  দ্রততম সময়ে এবং কম খরচে মানুষকে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে পারে। হানাহানি মুক্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশ তৈরি করতে পারে। তাই মামলাজট নিরসন করে বঙ্গবন্ধুর কাংখিত সোনার বাংলা গড়তে মেডিয়েশন পদ্ধতি প্রয়োগের বিকল্প নেই।

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন বলেন,বাংলাদেশের মত জনবহুল দেশে বিরোধ মীমাংসার জন্য মেডিয়েশন পদ্ধতি সর্বোত্তম। কারণ মেডিয়েশন পদ্ধতিতে বিরোধ মীমাংসা হলে উভয় পক্ষের বিজয় নিয়ে আসে। কেউ পরাজিত হয় না।  মেডিয়েশন পদ্ধতিকে বিচার ব্যবস্থায় ফলপ্রসু করতে বিচারক ও আইনজীবীদের একযোগে কাজ করার আহবান জানান তিনি।

ভার্চুয়ালি এ প্রশিক্ষণ কর্মশালায়  , ভারতের সুপ্রিম কোর্টের সাবেক বিচারপতি কুরিয়ান জো সেফ,আফ্রিকাএশিয়া মেডিয়েশন এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান  মেডলিন কিমিই,বিমসের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এস এন গোস্বামী, আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষক  অ্যাক্রিডিটেড মেডিয়েটর তনুশ্রী রায়,প্রিয়াংকা চক্রবর্তী,চাঁদপুরের জেলা ও দায়রা জজ এস এম জিয়াউর রহমান   বক্তব্য  রাখেন। দুইদিন ব্যাপী কর্মশালায় চট্রগ্রাম বিভাগের ৪০ জন বিচারক অংশ গ্রহণ করেছেন।

উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন ও আইন মন্ত্রণালয়ের অনুমতি সাপেক্ষে  বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েশন সোসাইটির(বিমস) উদ্যোগে ক্রমান্বয়ে সারাদেশের বিচারকদের মেডিয়েশন বিষয়ে প্রশিক্ষণ চলছে। ইতিমধ্যেই রংপুর,রাজশাহী ও বরিশাল ও খুলনা  বিভাগের বিচারকদের প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে। প্রশিক্ষণ কর্মশালায় আপিল বিভাগের বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মেডিয়েটররা প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছেন।

 

 

 

 

অনুগ্রহ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ সম্পর্কীত আরো সংবাদ