1. [email protected] : dalim :
  2. [email protected] : dalim1 :
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১০:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম

মেডিয়েশন বিষয়ে প্রশিক্ষণ করতে চান খুলনা বিভাগের ৪০ বিচারক

  • প্রকাশিত হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ১৮ মার্চ, ২০২১
  • ২২৫ বার পঠিত হয়েছে

ল লাইফ রিপোর্ট: খুলনা বিভাগের বিভিন্ন আদালতের ৪০ জন বিচারক মেডিয়েশন(মধ্যস্থতা) বিষয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করতে অনুমতির জন্য আবেদন করেছেন।

গত ১৬ মার্চ মঙ্গলবার  সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো: আলী আকবরের মাধ্যমে আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলীর কাছে  এ আবেদন করা হয়েছে।

কোর্স কো-অর্ডিনেটর ও সাতক্ষীরার সিনিয়র জেলা জজ শেখ মফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত আবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েশনে সোসাইটি(বিমস) এর সহযোগিতায় আগামী ২ ও ৩ এপ্রিল মেডিয়েশন বিষয়ে ৪০ জন বিচারকের জন্য একটি ভার্চুয়াল প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়েছে। ‍বিচারকরা উক্ত প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক।

তাই উক্ত ৪০ বিচারককে উক্ত প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণের জন্য প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনাসহ প্রশাসনিক অনুমোদন ও নির্দেশনা কামনা করছি।

৪০ বিচারক হলেন:

সাতক্ষীরার সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর ইসলাম, সাতক্ষীরার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ ফারুক ইকবাল, সাতক্ষীরার (যুগ্ম জেলা জজ) ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইব্যুনাল বিচারক মোঃ জাহিদুল আজাদ, যশোরের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ শিমুল কুমার বিশ্বাস, যশোরের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আসিফ ইকবাল, চুয়াডাঙ্গার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ সিরাজুল ইসলাম গাজী, ঝিনাইদহের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ মাসুদ আলী, বাগেরহাটের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ খুরশিদ আলম, কুষ্টিয়ার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ রাকিবুল ইসলাম, মেহেরপুরের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ কেরামত আলী, নড়াইলের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আকরাম হোসেন,খুলনার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ এম এ সাঈদ, মাগুরার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোঃ শাহজাহান আলী, খুলনার বিচারক (অর্থ ঋণ আদালত) রাফিয়া ইসলাম, যশোরের জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার (সিনিয়র সহকারী জজ) মোঃ আহসান হাবীব, সাতক্ষীরার জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার (সিনিয়র সহকারী জজ) সালমা আক্তার, খুলনার জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার (সিনিয়র সহকারী জজ) প্রবীর কুমার দাস, বাগেরহাটের সহকারী জজ ও লিগাল এইড অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ ইমরান মোল্লা, মেহেরপুরের লিগ্যাল এইড অফিসার মোঃ সেলিম রেজা, নড়াইলের জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার পশুপতি বিশ্বাস, মাগুরার জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার নুসরাত জাবীন  নিম্মী, সাতক্ষীরার সিনিয়র সহকারী জজ মোঃ নাসিরুদ্দিন ফরাজী, কুষ্টিয়ার সিনিয়র সহকারী জজ মোঃ হাদিউজ্জামান, যশোরের সিনিয়র সহকারী জজ মোঃ মিজানুর রহমান নাসির উদ্দিন, খুলনার সিনিয়র সহকারী জজ প্রণব কুমার হুই, নড়াইলের  সিনিয়র সহকারী জজ তাকিয়া সুলতানা, মেহেরপুরের সিনিয়র সহকারী জজ বিল্লাল হোসেন, সাতক্ষীরার সহকারী জজ মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, সাতক্ষীরার সহকারী জজ মোঃ ইমরান  আহম্মেদ, চুয়াডাঙ্গার সহকারী জজ নাজনীন আক্তার, চুয়াডাঙ্গার সহকারী জজ (ভারপ্রাপ্ত লিগ্যাল এইড অফিস) মোঃ আরমান হোসেন, যশোরের সহকারী জজ রেজাউল করিম বাঁধন, খুলনার সহকারী জজ মোঃ রাশিদুল আলম, খুলনার সহকারী জজ রিমি সাহা, ঝিনাইদহের সহকারী জজ মোঃ রিপন হোসেন, ঝিনাইদহের সহকারী জজ মোঃ রিয়াদ হাসান, বাগেরহাটের সহকারী জজ জুবাইদা নাসরিন বর্ণা, কুষ্টিয়ার সহকারী জজ রাইসা সরকার, কুষ্টিয়ার সহকারী জজ মোঃ মোখলেছুর রহমান, মাগুরার সহকারী জজ অনুশ্রী রায়।

উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন ও আইন মন্ত্রণালয়ের অনুমতি সাপেক্ষে বিমসের উদ্যোগে ক্রমান্বয়ে সারাদেশের বিচারকদের মেডিয়েশন বিষয়ে প্রশিক্ষণ চলছে। ইতিমধ্যেই রংপুর,রাজশাহী ও বরিশাল বিভাগের বিচারকদের প্রশিক্ষণ শেষ হয়েছে। প্রশিক্ষণ কর্মশালায় আপিল বিভাগের বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মেডিয়েটররা প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছেন।

অনুগ্রহ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ সম্পর্কীত আরো সংবাদ