1. [email protected] : dalim :
  2. [email protected] : dalim1 :
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
পাঠ্যবইয়ে ভুল : এনসিটিবির চেয়ারম্যানকে হাইকোর্টে তলব মুনিয়াকে ধর্ষণের পর হত্যা: রিপনের হাইকোর্টে আগাম জামিন সরকারি কর্মচারীদের গ্রেফতারে পূর্বানুমতি কেন অবৈধ নয় সাবেক প্রতিমন্ত্রী আবদুল মান্নান দম্পতির বিচার শুরু বৃদ্ধা আছিয়াকে হাজির করতে এবার পুলিশকে নির্দেশ দিলেন হাইকোর্ট সিজিএম মোঃ শওকত আলীর সুস্থতা কামনায় ভার্চুয়াল দোয়া মাহফিল ই-কমার্স গ্রাহকদের স্বার্থরক্ষায় ৩৩ ভুক্তভোগীর রিট আসামির শরীরে ক্ষতচিহ্ন; স্বপ্রণোদিত হয়ে তদন্তের নির্দেশ দিলেন আদালত মিথ্যা তথ্য দিয়ে মামলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় বিবাদীকে বিশ হাজার টাকা জরিমানা আন্তর্জাতিক শান্তি দিবস পালন করলো সিএমসি

চীনা রাষ্ট্র ব্যবস্থায় বিচার বিভাগের অবস্থান

  • প্রকাশিত হয়েছে : বুধবার, ১৩ মে, ২০২০
  • ৩২৮ বার পঠিত হয়েছে

মো. জিয়াউর রহমান ||

বিমূর্তঃ বিশ্বের বেশিরভাগ রাষ্ট্র ব্যবস্থায় আইন বিভাগ (legislature), বিচার বিভাগ (judiciary) ও শাসন বিভাগ (executive) কেউ কারও উপর সীমাহীন ক্ষমতা ভোগ করে না, Check & Balance থাকে, আর বিচার বিভাগ Judicial Review ক্ষমতার জন্য সব জায়গায় বিশেষ মর্যাদা ভোগ করে। কিন্তু চায়নাতে রাষ্ট্র ব্যবস্থা এমন নয়। কমিউনিস্ট এ রাষ্ট্রে legislature হিসেবে National People’s Congress (NPC) শুধু আইন প্রণয়ন করে না, বরং অন্য ২ বিভাগকে সরাসরি নিয়ন্ত্রণ করে। বিচার বিভাগ তাই NPC এর সৃষ্টি ও তার কাছে দায়বদ্ধ। এ লেখায় আমরা রাষ্ট্র ব্যবস্থায় বিচার বিভাগের অবস্থান জানার চেষ্টা করবো। 

১. ভূমিকাঃ National People’s Congress (NPC)  হলো চাইনিজ রাষ্ট্র ব্যবস্থার সর্বোচ্চ প্রতিষ্ঠান, সেই NPC আইন ব্যাখ্যার দায়িত্ব অর্পণ করেছে বিচার বিভাগের উপর নয়, বরং তারই অধীনস্থ Standing Committee of National People’s Congress (SCNPC) এর উপর। কোন আইনের সঠিকতা যাচাই করার ক্ষমতা কোর্ট এর নেই। কোর্ট শুধু আইন অনুযায়ী আইন প্রয়োগ করে মাত্র। এখন প্রশ্ন যেখানে আইন নেই, অথবা অসম্পূর্ণ বা অস্পষ্ট সেক্ষেত্রে কি হবে। এক্ষেত্রে SCNPC সর্বোচ্চ আদালত Supreme People’s Court (SPC) কে শুধুমাত্র বিচার এর সাথে সম্পৃক্ত অংশটুকো ব্যাখ্যা করার ক্ষমতা অর্পণ করে, সুস্পষ্টভাবেই কোন আইন ব্যাখ্যা করে তার সঠিকতা নিরুপন করার ক্ষমতা কোর্ট কে দেওয়া হয়নি। তাহলে কি বিচার বিভাগের Law Making Power নেই? এ প্রশ্নের উত্তর আমরা খুঁজবো। 

২.১ রাষ্ট্র কাঠামোঃ চায়নার রাষ্ট্র কাঠামো এককেন্দ্রিক। সংবিধান ৬ টি প্রতিষ্ঠানকে স্বীকৃত দেয়- ১. State Council   ২. President, ৩. Judiciary, ৪. Procuratorate, ৫. Central Military Commission এবং ৬. Supervisory Commission. এসব প্রতিষ্ঠান প্রধান পার্টির মনোনিত। আর NPC হলো সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান, সব কিছুর ভিত্তি। অন্য সব প্রতিষ্ঠানের উপর NPC ক্ষমতা চর্চা করে। NPC বছরে একবার সভায় বসে। NPC এর সদস্য প্রায় ৩০০০ জন। বিশাল আয়তনের জন্য NPC এর হয়ে সারাবছর নিয়মিত কাজ করে SCNPC. রাষ্ট্রের প্রধান নির্বাহী প্রতিষ্ঠান State Council. Supreme People’s Procuratorate  (SPP) হলো Legal Supervision Organ. এটা আমাদের আটর্নী জেনারেল অফিসের মত। তবে চায়নার প্রকিউরেটোরেট আমাদের পিপিশীপ ও আটর্নী অফিসের চেয়ে অনেক বেশী কার্যকর। Supreme People’s Court হলো সর্বোচ্চ আদালত। Central Military Commission আর্মস ফোর্সকে পরিচালনা করে। National Supervision Commission ২০১৮ সালে সৃষ্ট যা আমাদের দূদক এর মতো স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে কাজ করে। 

২.২ প্রশাসনিক কাঠামোঃ ৪ টি প্রশাসনিক ভাগ ১. Provincial Level (২৩ টি প্রভিন্স, ৫ টি স্বনিয়ন্ত্রিত অঞ্চল, ৪ টি মিউনিসিপালিটি, ২ টি বিশেষ প্রশাসনিক এলাকা- ক. হংকং, খ. মাকাও) ২. Prefectural Level (৩৩৪ টি), ৩. County Level (২৮৫১ টি), ৪. Township Level (৩৯৮৮৮ টি).

২.৩ আদালত স্তরগুলোঃ চায়নার আদালত ব্যবস্থা পিরামিড স্টাইলের মত যার সবচেয়ে উপরে ১. Supreme People’s Court, তার নিচে ২. High People’s Court, তার নিচে ৩. Intermediates People’s Court ( এটা আমাদের জেলা জজ কোর্ট এর মত) এবং সবচেয়ে নিচে ৪. Basic People’s Court (আমাদের গ্রাম আদালত ও মোবাইল কোর্ট এর মিশ্রিত রুপের মত, ছোট ছোট অপরাধ সংক্ষেপে বিচারের জন্য). বিচারের ক্ষেত্রে কোর্ট স্বাধীন ও কেউ হস্তক্ষেপ করবে না বলা হলেও সংবিধানের আর্টিকেল ১৩৩ অনুযায়ী প্রত্যেকস্তরের আদালত সেই স্তরের People’s Congress এর কাছে দায়বদ্ধ। এখানে সর্বোচ্চ আদালত অন্য বিভাগের কাজের বিষয়ে Check & Balance হয়ে কাজ করে না। বরং State Council (এক্সিকিউটিভ), প্রকিউরাটোরেট, people’s Court, Military Commission, Supervision Commission সব এক রেখায় পরিপূরক হিসেবে অবস্থান করে। আর সবার উপরে ছাতার মত NPC অবস্থান করে।

৩.১ আইন তৈরীর প্রতিষ্ঠান সমূহঃ সংসদ বা legislature হিসেবে NPC শুধুমাত্র গুরুত্বপূর্ণ মৌলিক আইন (Basic Law) তৈরি করে। ২/৩ মেজোরিটি ভোটে NPC সংবিধান সংশোধন করতে পারে। মৌলিক আইন ব্যতীত বাঁকি সব আইন (৮০%)  SCNPC তৈরী করে। আইন তৈরীর পাশাপাশি স্পষ্টীকরণ ও ব্যাখা হিসেবে Decision, Regulations, Provisions আকারে SCNPC নির্দেশনা দেয়। এমনকি NPC সেসনে না থাকলে SCNPC NPC এর তৈরী আইনে প্রয়োজনীয় সংশোধনও আনতে পারে, শর্ত তা মৌলিক কোন বিষয়ে সাংঘর্ষিক হবে না। যে বিষয়ে এখনো কোন আইন নাই, সে সব বিষয়ে State Council প্রশাসনিক আদেশ জারী করতে পারে। স্থানীয় সরকারগুলো নিজস্ব রেগুলেশন তৈরী করতে পারে তবে শর্ত তা আইন ও বিধির সাথে সাংঘর্ষিক হতে পারবে না। 

৩.২ আইনের মর্যাদাঃ সংবিধান সর্বোচ্চ আইন। কোন আইন সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক হবে না। প্রশাসনিক বিধি সংবিধান ও আইনের সাথে এবং স্থানীয় সরকারের বিধি সংবিধান, আইন, প্রশাসনিক বিধির সাথে সাংঘর্ষিক হবে না। কিভাবে কোন আইন তৈরী হবে এবং কার কি স্টাটাস হবে এ জন্য Legislation Law- 2000 প্রণীত আছে। 

৩.৩ আইন বাতিল বা পরিবর্তনঃ এ প্রশ্ন স্বাভাবিক, উচ্চতর কর্তৃত্বের আইনের সাথে অধস্তন কর্তৃত্বের আইন সাংঘর্ষিক হলে তা বাতিল বা পরিবর্তন করবে কে? কোর্ট! না, কোর্ট নয়, বাতিল বা পরিবর্তন করবে উচ্চতর কর্তৃপক্ষ। যেমন NPC বাতিল বা পরিবর্তন করতে পারে SCNPC এর আইন, SCNPC করতে পারবে State Council ও স্থানীয় সরকারের আইন। একইভাবে State Council তার অধস্তন স্থানীয় সরকারের আইন- এভাবে নিন্মগামী হতে থাকবে। চায়নাতে একটি মামলা আছে, ‘জাজ লি’ কেস। খুবই বিখ্যাত। হেনান প্রভিন্সের স্থানীয় একটি আইন জাতীয় বীজ আইনের সাথে সাথে সাংঘর্ষিক হলে জাজ লি স্থানীয় আইনটি অবৈধ ঘোষণা করেন। সাথে সাথে তা ব্যাপক প্রচার পায় এবং সারাদেশে জোরালো বিতর্ক তৈরী করে। একপক্ষ বলে, জাজ লি তার ক্ষমতার বাইরে গিয়ে এমন রায় দিয়েছে। অন্যপক্ষ বিশেষত আইনের শিক্ষক সহ স্কলাররা বলে, জাজ লি ঐতিহাসিক রায় দিয়ে বিচার বিভাগের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠায় সাহস দেখিয়েছে। বাস্তবে এ রায়ের জন্য লি কে অনেক ঝামেলা পোহাতে হয়েছিল। তার সার্ভিস ক্যারিয়ার হুমকিতে পড়েছিল। পরবর্তীতে হেনান হাইকোর্ট রায়টা বাতিল করে এবং জাজ লি কে এমন রায় দেয়ার জন্য Stricture দেয়। 

৪.১ Judicial Interpretations: আগেই উল্লেখ করেছি, কোন আইন বৈধ কি অবৈধ এমন ব্যাখ্যা দেওয়ার ক্ষমতা কোর্টের নেই। কিন্তু আইন তো পূর্ণ হয় না, কোথাও কোথাও অপূর্ণ থাকে, অস্পষ্টতা থাকে। এসব পূরণে Judicial Interpretations (J.I) দরকার হয়। চায়নাতে আমাদের দেশের মত precedent বা judge made law না থাকলেও আইনের অস্পষ্টতা দূর করা, সুনির্দিষ্টতা প্রদানে আমাদের দেশের হাইকোর্ট সার্কুলারের মত করে চায়নার সর্বোচ্চ আদালত SPC ৪ ধরনের interpretations বা ব্যাখ্যা দিয়ে থাকে। ক. Interpretations: কোন আইন কিভাবে ব্যবহৃত হবে এটা জানাতে, খ. Provisions: বিচার কার্যক্রমে একই মান ঠিক রাখার জন্য ইস্যু করা হয়, গ. Replies: কোন আইন প্রয়োগে বিচারকের সুনির্দিষ্ট প্রশ্নের উত্তর আকারে এবং ঘ. Decisions: আগের কোন বিধি বা নির্দেশনা বাতিল বা পরিবর্তন বিষয়ে। বিষয়টি পরিষ্কার করতে একটা উদাহরণ দেই- ২০১২ সনে Criminal Law তে সংশোধন এনে আইনশৃংখলা বাহিনীর Torture অপরাধ হিসাবে সংযুক্ত করলেও কি কি Torture বুঝাবে তা সুস্পষ্ট ছিল না। পরে SPC Soft Torture ও Torture এর আওতায় আসবে বলে এবং Interpretation দিয়ে বলে দেয়, পর্যাপ্ত খাবার না দেয়া, ঘুমাতে না দেয়া, পানি না দেয়া, বিশ্রাম না দেয়া, রোদে দাড় করে রাখা Soft Torture হিসেবে গণ্য হবে। লক্ষণীয়, এসব Interpretation দৈনন্দিন  বিচার ও প্রক্রিয়ার সাথে সম্পর্কিত, কোন ভাবেই Judicial Review এর মত কর্তৃত্ব নয়। 

৪.২ Guiding Cases (GC): অনেকটা Precedent এর মত এই গাইডিং কেস সিস্টেম। এখন পর্যন্ত পরীক্ষা নিরীক্ষার মত করে খুব সতর্কভাবে গাইডিং কেস ইস্যু করা হচ্ছে। ২০১১ সন হতে আজ পর্যন্ত ইস্যুকৃত GCs এর মোট সংখ্যা সিভিল ক্রিমিনাল মিলে ১০০ টার মত। কোন গুরুত্বপূর্ণ মামলার সিদ্ধান্ত একটা কমিটির মাধ্যমে নির্ধারিত ফরমেটে অধস্তন সবাইকে মেনে চলার জন্য এমন Guiding Case ইস্যু করা হয়।  যেমন আসামী একটা হত্যাকান্ড ঘটিয়ে সরাসরি পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে এবং স্বীকারোক্তি দেয়। নিন্ম আদালত তাকে কঠোর শাস্তি দিলেও SPC আসামীর স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ ও দোষস্বীকার কে Mitigating Circumstances বিবেচনা করে যাবজ্জীবন দেয়। এটা Guiding Case হিসেবে ইস্যু করা হয়। Precedent ও Guiding Case এর মধ্য পার্থক্য হলো- উচ্চতর আদালতের সিদ্ধান্ত সরাসরি নজীর হয়, আর চায়নাতে Quasi Judicial কমিটি যাচাই করে উচ্চ আদালতের সিদ্ধান্ত Guiding Case হিসেবে ইস্যু করে। এই GC এর মর্যাদা Judicial Interpretations এর মত, আর GC   এবং JI এর মধ্যে conflict থাকলে JI প্রাধান্য পাবে।

 
৫. উপসংহারঃ আমাদের মনে রাখতে হবে, চায়নাতে কমিউনিস্ট সরকার ও একদলীয় শাসন ব্যবস্থা বিদ্যমান। চায়নার রাষ্ট্রীয় ও সরকার কাঠামোর কারণে সতর্কভাবেই বিচার বিভাগকে অন্য বিভাগের কোন উপর হস্তক্ষেপের সুযোগ দেয়া হয়নি। আর সে কারণে কোর্ট শুধু আইন অনুযায়ী কাজ করে, আইনের বৈধতা মাপতে পারে না। তবে, রক্ষণশীল রাজনৈতিক কাঠামোর মধ্যে থেকেও পরিবর্তিত অর্থনৈতিক ও প্রযুক্তিগত উন্নয়নের সাথে সাথে চায়নাতে বিচার বিভাগ কাঙ্খিত উন্নয়নের দিকেই হাঁটছে।

লেখক : চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, মাগুরা।

অনুগ্রহ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করুন

এ সম্পর্কীত আরো সংবাদ